Bhawalnews24
অর্থনীতি-ব্যবসা

প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত প্রণোদনা প্যাকেজে ১৩১ কোটি ১৪ লাখ টাকা এসএমই ঋণ বিতরণ করেছে বিসিক

ঢাকা, ২৬ আগস্ট, ২০২০ (বাসস) : বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করপোরেশনের (বিসিক) পক্ষ থেকে এ পর্যন্ত ১৩১ কোটি ১৪ লাখ টাকা এসএমই ঋণ বিতরণ করা হয়েছে।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত ক্ষুদ্র, মাঝারি, মাইক্রো ও কুটির শিল্পের জন্য প্রণোদনা প্যাকেজ হতে জেলা এসএমই ঋণ বিতরণ মনিটরিং কমিটির তদারকিতে এ ঋণ বিতরণ করা হয়।
বিসিকের ঋণ প্রশাসন বিভাগ থেকে সর্বশেষ প্রাপ্ত তথ্যানুযায়ি বিসিকের ঢাকা, রাজশাহী, খুলনা ও চট্টগ্রাম আঞ্চলিক কার্যালয়ের আওতাধীন বিভিন্ন জেলায় এসএমই ঋণ বিতরণ মনিটরিং কমিটির তদারকিতে করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত কুটির, মাইক্রো, ক্ষুদ্র ও মাঝারিখাতের ৭০২ জন শিল্পোদ্যোক্তার মধ্যে ১৩১ কোটি ১৪ লাখ ৭ হাজার টাকা ঋণ বিতরণ করা হয়েছে। এর মধ্যে ৪৮ জন নারী ও ৬৫৪ জন পুরুষ উদ্যোক্তা রয়েছেন।
করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের ফলে সৃষ্ট পরিস্থিতির কারণে শিল্পখাতের ক্ষতি পুষিয়ে নিতে প্রধধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত প্রণোদনা প্যাকেজের আওতায় ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পখাতে ঋণ বিতরণ কার্যক্রম সমন্বিত ও সুচারুরূপে বাস্তবায়নের লক্ষ্যে প্রতিটি জেলায় এসএমই ঋণ বিতরণ মনিটরিং কমিটি গঠন করা হয়েছে।
মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অনুমোদনক্রমে এ বছরের ১ জুন শিল্প মন্ত্রণালয়ের এক আদেশে এ কমিটি গঠন করা হয়।
কমিটিতে জেলা প্রশাসককে আহ্বায়ক এবং বিসিকের জেলা পর্যায়ে অবস্থিত শিল্প সহায়ক কেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত উপ-মহাব্যবস্থাপক/ব্যবস্থাপক/উপ-ব্যবস্থাপককে সদস্য সচিবের দায়িত্ব প্রদান করা হয়েছে।
এছাড়া জেলা পর্যায়ের এ কমিটিতে প্রণোদনা প্যাকেজের আওতায় ঋণ বিতরণের কাজে নিয়োজিত লিড ব্যাংকসহ অন্যান্য ব্যাংকের জেলা পর্যায়ের শীর্ষ কর্মকর্তা, বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রতিনিধি (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে), এসএমই ফাউন্ডেশনের প্রতিনিধি (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে), জেলা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি, জাতীয় ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প সমিতি বাংলাদেশের (নাসিব) জেলা সভাপতি, খাতভিত্তিক শিল্প সংগঠনের জেলা সভাপতি (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে), উইমেন চেম্বার/অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে), জেলা প্রশাসক মনোনীত স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তি (একজন) এবং জেলা প্রশাসক মনোনীত মাইক্রোফিন্যান্সিং প্রতিষ্ঠান/আর্থিক প্রতিষ্ঠানের জেলা প্রতিনিধিকে সদস্য হিসেবে অর্ন্তভুক্ত করা হয়েছে।
গঠিত কমিটিকে জেলার অতি ক্ষুদ্র, কুটির এবং মাঝারি শিল্পের ক্ষতিগ্রস্ত উদ্যোক্তারা যেন কান ধরণের ঝামেলা ছাড়াই স্বচ্ছতার সাথে ব্যাংক থেকে প্রণোদনা প্যাকেজের আওতায় ঋণ নিতে পারেন, এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ, প্রণোদনা প্যাকেজের আওতায় ঋণগ্রহীতা নির্বাচন, ঋণ বিতরণ, তদারকি ও আদায় সংক্রান্ত কার্যক্রম নিয়মিত পর্যবেক্ষণ এবং এ সংক্রান্ত উদ্ভূত কোনো সমস্যা স্থানীয়ভাবে সমাধানের উদ্যোগ গ্রহণের দায়িত্বও দেয়া হয়েছে।

Related posts

বড় আকারের বিদেশি বিনিয়োগ আসার প্রত্যাশা অর্থমন্ত্রীর

admin

উৎপাদনে অপার সম্ভাবনা, বিপণনে পাল্টাতে পারে অর্থনীতির গতিধারা

admin

কর্মসংস্থানে দুই হাজার কোটি টাকার প্যাকেজ

admin

Leave a Comment