চাকরিপ্রার্থীদের জন্য সুখবর, আবার খুলছে দুয়ার


shakil প্রকাশের সময় : মার্চ ৬, ২০২২, ৪:৫৬ পূর্বাহ্ন / ১৯
চাকরিপ্রার্থীদের জন্য সুখবর, আবার খুলছে দুয়ার

করোনা শনাক্তের হার কমে যাওয়ায় ইতিবাচক ধারা তৈরি হয়েছে চাকরির বাজারেছবি: চাকরি–বাকরি
করোনাভাইরাসের প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় গত কয়েক মাসে নতুন নিয়োগ যেমন কমে এসেছিল, তেমনি স্থগিত করা হয়েছিল চাকরির চলমান পরীক্ষাও। কিন্তু গত কয়েক দিনে করোনা শনাক্তের হার কমে গেছে। এই পরিস্থিতিতে একটি ইতিবাচক ধারা তৈরি হয়েছে চাকরির বাজারে। নতুন নতুন নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি আসছে। আবার স্থগিত হওয়া নিয়োগ পরীক্ষাগুলোর পরীক্ষার তারিখও দেওয়া হচ্ছে।
বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি), সরকারি ব্যাংক, সরকারি স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান, সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়, বেসরকারি ব্যাংক, বেসরকারি দেশি ও আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থা, বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের নতুন নতুন চাকরির বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হওয়া শুরু হয়েছে।
বিসিএসের নিয়োগে গতি ফিরেছে
রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ বিভিন্ন নিয়োগ কার্যক্রম দ্রুততম সময়ের মধ্যে শেষ করতে সরকারি কর্ম কমিশনকে (পিএসসি) নির্দেশ দিয়েছেন। গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বঙ্গভবনে পিএসসির চেয়ারম্যান মো. সোহরাব হোসাইনের নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল রাষ্ট্রপতির কাছে কমিশনের বার্ষিক প্রতিবেদন ২০২১ পেশ করে। এ সময় রাষ্ট্রপতি এ নির্দেশনা দেন। রাষ্ট্রপতি বাছাই পরীক্ষা বিকেন্দ্রীকরণ ও করোনাকালে চিকিৎসকসহ জরুরি প্রয়োজনে স্বল্প সময়ে নিয়োগের সুপারিশ করায় পিএসসিকে ধন্যবাদ জানান।
করোনা কমে যাওয়ায় বিসিএসে গতি আসবে বলে মনে করেন পিএসসির চেয়ারম্যান মো. সোহরাব হোসাইন। তিনি প্রথম আলোকে বলেন, ‘এ মাসেই ৪০তম বিসিএসের চূড়ান্ত ফল দেওয়া হবে। ৪১তম বিসিএসের খাতা দেখার কাজ চলছে, সামনের মাসে হয়তো লিখিতের ফলাফল দিতে পারব। এ ছাড়া ৪৩তম বিসিএসের লিখিতের তারিখ দেওয়া হয়েছে, এটি ২৪ জুলাই থেকে শুরু হবে। ৪৪তম বিসিএসের আবেদন গ্রহণ চলছে। শেষ হলে কবে প্রিলিমিনারি পরীক্ষা হবে, তা ঠিক করে ফেলা হয়েছে। সব মিলিয়ে এমনভাবে বিসিএসের পরীক্ষাগুলোর তারিখ দেওয়া হচ্ছে, যাতে আমাদের তারিখ পরিবর্তন করতে না হয়। এ ছাড়া যাতে যথা সময়ে পরীক্ষাগুলো শেষ করে ফলাফল দেওয়া যায়, সে জন্য আমাদের প্রতিটি বিভাগ কাজ করে যাচ্ছে।’ এ ছাড়া নন–ক্যাডারদের পরীক্ষা, কর্মকর্তাদের বিভাগীয় পরীক্ষাগুলোতেও গতি এসেছে বলে মনে করেন সোহরাব হোসাইন। বাংলাদেশে সরকারি চাকরিগুলোর মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় হচ্ছে বিসিএসের চাকরি। গত কয়েকটি বিসিএসে ২ হাজার বা ২ হাজার ৫০০ পদের বিপরীতে গড়ে ৪ লাখের বেশি প্রার্থী আবেদন করেছিলেন। ভালো বেতন, চাকরির নিশ্চয়তা, সামাজিক মর্যাদা—এসব বিবেচনায় বিসিএসের চাকরিই তরুণদের কাছে সবচেয়ে বেশি পছন্দের।
ব্যাংকে চাকরির নতুন নিয়োগ ও আটকে থাকা পরীক্ষা শুরু
করোনার কারণে আটকে থাকা সরকারি ব্যাংকগুলোর স্থগিত নিয়োগ পরীক্ষার নতুন তারিখ দেওয়া শুরু করেছে সরকারি ব্যাংকের নিয়োগের দায়িত্বে থাকা ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটি। এই কমিটির দায়িত্বে থাকা বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তারা জানান, করোনায় বেশি নিয়োগপ্রার্থী আছেন, এমন নিয়োগ পরীক্ষাগুলো স্থগিত করতে হয়েছে। তবে যেহেতু করোনা কমে এসেছে, তাই সেগুলো নেওয়ার কাজ শুরু করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। কোনো কোনো ব্যাংকের লিখিত পরীক্ষা আটকে আছে, আবার কোনো কোনো ব্যাংকের মৌখিক পরীক্ষা আটকে আছে। সেগুলো গুরুত্ব বুঝে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে নেওয়া হচ্ছে।
বাংলাদেশ ব্যাংক জানায়, ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটির সদস্যভুক্ত সমন্বিত সাত ব্যাংক/আর্থিক প্রতিষ্ঠানের ২০১৯ সালভিত্তিক সিনিয়র অফিসার (প্রকৌশলী-সিভিল) পদের মৌখিক পরীক্ষার সময়সূচি প্রকাশ করা হয়েছে।
বাংলাদেশ ব্যাংকের নিয়োগসংক্রান্ত ওয়েবসাইটে এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, সিনিয়র অফিসার (প্রকৌশলী-সিভিল) পদের মৌখিক পরীক্ষা ৯ মার্চ শুরু হবে, চলবে ১৫ মার্চ পর্যন্ত।
ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটির সদস্যভুক্ত সমন্বিত ৯টি ব্যাংক/আর্থিক প্রতিষ্ঠানের ২০১৮ সালভিত্তিক অফিসার (জেনারেল) পদের এমসিকিউ পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করা হয়েছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের নিয়োগসংক্রান্ত ওয়েবসাইটে এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, সমন্বিত ৯টি ব্যাংক/আর্থিক প্রতিষ্ঠানের অফিসার (জেনারেল) পদে এমসিকিউ পরীক্ষায় ২০ হাজার ৮০৬ জন উত্তীর্ণ হয়েছেন। উত্তীর্ণ প্রার্থীদের লিখিত পরীক্ষা ১৮ মার্চ অনুষ্ঠিত হবে। রাজধানীর ১১টি কেন্দ্রে এ পরীক্ষা নেওয়া হবে।
এ ছাড়া সামনে ব্যাংকে সমন্বিত নিয়োগের ক্ষেত্রে বড় কয়েকটি নতুন নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি আসবে বলেও জানানো হয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে। এ দেশে বিসিএসের পর ব্যাংকের চাকরিতে সবচেয়ে বেশি ঝোঁক বলে জানা গেছে। এই চাকরি করতে ৬ হাজার পদের বিপরীতে ১০ লাখ আবেদন জমা পড়েছিল।
এত বিপুল আবেদনের কারণ জানতে চাইলে বাংলাদেশ ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটির (বিএসসি) সাবেক প্রধান মোশাররফ হোসেন খান বলেন, সমন্বিত পদ্ধতিতে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করার কারণে আবেদন বেড়েছে।
কম সুদে ঋণ, ভালো বেতন, দক্ষতা দেখিয়ে এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ ব্যাংক চাকরিকে অনন্য করেছে। প্রদীপ কুমার দত্ত ১৯৭৭ সালে সোনালী ব্যাংকের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা হিসেবে পেশা শুরু করেন। ২০১০ সালে তিনি রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) হিসেবে নিয়োগ পান। ২০১২ সালের ১৭ জুন তিনি সোনালী ব্যাংকের এমডি হন। প্রায় ৪০ বছর ব্যাংকিং পেশায় ছিলেন তিনি। চাকরি হিসেবে আকর্ষণীয় হওয়ায় ব্যাংকে আবেদনের সংখ্যা বাড়ছে উল্লেখ করে সোনালী ব্যাংকের সাবেক এমডি প্রদীপ কুমার বলেন, বেশি বেতন, চাকরির নিশ্চয়তা, নানা ধরনের ঋণ সুবিধা থাকার কারণে ব্যাংকের চাকরি তরুণদের প্রথম পছন্দ। তবে আবেদন বাড়ার আরেকটি কারণ বেকারত্ব।
প্রাথমিকের নিয়োগ পরীক্ষা সামনে
ব্যাংক বিসিএসের পর যেসব সরকারি চাকরির তরুণদের পছন্দ, সেই তালিকায় আছে প্রাথমিকের শিক্ষক পদের চাকরি। একটি নিয়োগ পরীক্ষা করোনার কারণে আটকে ছিল। প্রাথমিক শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের একজন দায়িত্বশীল কর্মকর্তা প্রথম আলোকে বলেন, প্রাথমিকের শিক্ষক পদের একটি পরীক্ষা বারবার নেওয়ার প্রস্তুতি নিলেও করোনার কারণে সেটি সম্ভব হয়নি। সেটি মার্চের মধ্যে নেওয়ার পরিকল্পনা আছে বলে জানান তিনি।
সর্বশেষ হয়ে যাওয়া প্রাথমিকের নিয়োগ পরীক্ষায় প্রায় ২৫ লাখ আবেদন জমা পড়েছিল। কয়েক ধাপে এই নিয়োগ পরীক্ষা নেওয়া হয়। সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকের ৩২ হাজার ৫৭৭টি পদে ১৩ লাখ ৯ হাজার ৪৬১ জন প্রার্থী আবেদন করেছেন। এর মধ্যে প্রাক-প্রাথমিকে ২৫ হাজার ৬৩০ জন ও প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শূন্য পদে ৬ হাজার ৯৪৭ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে।
নতুন যেসব বড় নিয়োগ
বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীতে ট্রেইনি রিক্রুট কনস্টেবল (টিআরসি) পদে দেশের ৬৪ জেলা থেকে ৪ হাজার কনস্টেবল নিয়োগ দেওয়া হবে। তাঁদের মধ্যে ৩ হাজার ৪০০ জন পুরুষ ও ৬০০ জন নারী। উন্নত বাংলাদেশের উপযোগী করে পুলিশকে গড়ে তোলার লক্ষ্যে কনস্টেবল পদের নিয়োগ পরীক্ষার আধুনিকায়ন করা হয়েছে। নতুন নিয়মে কনস্টেবল পদে নিয়োগের জন্য সাতটি ধাপ অনুসরণ করে যোগ্য প্রার্থী নির্বাচন করা হবে।
ভূমি মন্ত্রণালয়ে কম্পিউটার অপারেটর পদে ৪৫৩ জন নেওয়া হবে। মন্ত্রণালয়ের ভূমি ব্যবস্থাপনা অটোমেশন প্রকল্পের আওতায় উপজেলা বা সার্কেল বা মেট্রো ভূমি অফিসে তিন বছরের জন্য অস্থায়ীভাবে এসব কর্মী নিয়োগ দেওয়া হবে। তিন পার্বত্য জেলার বাসিন্দা ছাড়া অন্য সব জেলার প্রার্থীরা আবেদনের সুযোগ পাবেন। আবেদন করতে হবে ২২ মার্চের মধ্যে।
বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ড ২৭ পদে ৬২৬ জন লোক চেয়ে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে। বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ডের উপপরিচালক (প্রশাসন) এবং নিয়োগ ও পদোন্নতি কমিটির সদস্যসচিব মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, ‘সব পদের পরীক্ষা আমরা মার্চ মাস থেকে শুরু করার পরিকল্পনা করছি। লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষা ছাড়াও কিছু পদের ক্ষেত্রে ব্যবহারিক পরীক্ষা নেওয়া হবে।’
বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন করপোরেশনে (বিআইডব্লিউটিসি) ১১ পদে ১১০ জন লোক নেওয়া হবে। আগ্রহী যোগ্য প্রার্থীদের অনলাইনে আবেদন করতে হবে। আবেদনের শেষ তারিখ আগামী ১৫ মার্চ।
বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন করপোরেশন (বিএডিসি) নবম ও দশম গ্রেডে ৭৮ পদে জনবল নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে। আগ্রহী প্রার্থীদের অনলাইনে ফরম পূরণের মাধ্যমে আবেদন করতে হবে। আবেদনের শেষ সময় ১৬ মার্চ।
ঢাকা ইলেকট্রিক সাপ্লাই কোম্পানি লিমিটেড (ডেসকো) ১০ ধরনের পদে ৮১ জন নিয়োগ দেবে। আবেদন করতে হবে অনলাইনে ৭ মার্চের মধ্যে।